Neeraj Chopra, নীরাজ চোপড়ার জীবনী, নীরাজ চোপড়া, Neeraj Chopra Biography
নীরাজ চোপড়ার জীবনী | Neeraj Chopra Biography in Bengali

নীরাজ চোপড়ার জীবনী | Neeraj Chopra Biography in Bengali

নীরাজ চোপড়ার জীবনী : নীরাজ চোপড়া হলেন একজন ভারতীয় বর্ষা নিক্ষেপকারী খেলোয়াড়। ২০২১ টোকিও অলিম্পিকে ভারতের হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন তিনি। ভারতের হয়ে জ্যাভলিন থ্রো বা বর্ষা নিক্ষেপ করে প্রথম প্রচেষ্টাতেই ৮৩.৫০ মিটার দূরত্বে বর্ষা ছুড়ে ফাইনাল স্তরে জায়গা করে নিয়েছিলেন তিনি এবং তিনি ফাইনাল রাউন্ডে ৮৭.৫৮ মিটার বর্ষা ছুরে ভারতের হয়ে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপ জয় করেন। অলিম্পিকে ভারতের হয়ে স্বর্ণপদক জয়ী প্রথম জ্যাভলিন থ্রো ক্রীড়াবিদ হলেন নীরাজ চোপড়া।

নীরাজ চোপড়ার এই অভাবনীয় জ্যাভলিন থ্রো বা বর্ষা নিক্ষেপ করার কৌশলের জন্য ভারতীয় সেনাবাহিনীতে তাকে শামিল করা হয়েছে। বর্তমানে তিনি ভারতীয় সেনাবাহিনীর একজন জুনিয়র কমিশন্ড অফিসার। তিনিই প্রথম ক্রীড়াবিদ যিনি অলিম্পিকে ভারতের হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন শিপ জয় করেছেন। তাহলে চলুন স্বর্ণপদক জয়ী নীরাজ চোপড়ার সম্পর্কে কিছু তথ্য জেনে নেওয়া যাক –

নীরাজ চোপড়ার জীবনী | Neeraj Chopra Biography
নাম (Name) নীরাজ চোপড়া
জন্ম (Birth) ২৪ শে ডিসেম্বর, ১৯৯৭
জন্মস্থান (Place of birth) পানিপথ, হরিয়ানা
পিতা (Father) সতীশ কুমার
মাতা (Mother) সরোজ দেবী
পেশা (Occupation) ট্র্যাক এবং ফিল্ড ক্রীড়াবিদ
শিক্ষাগত যোগ্যতা স্নাতক
জ্যাভলিন থ্রো (Javelin throw) বিশ্ব রাঙ্কিং  চতুর্থ স্থান
ধর্ম (Religion) হিন্দু 
জাতীয়তা (Nationality) ভারতীয়
প্রশিক্ষকের নাম (Coach ame) উবে হোন
Neeraj Chopra, নীরাজ চোপড়ার জীবনী, নীরাজ চোপড়া, Neeraj Chopra Biography
নীরাজ চোপড়ার জীবনী | Neeraj Chopra Biography in Bengali
নীরাজ চোপড়ার জন্ম ও পরিবার 

১৯৯৭ সালের ২৪ শে ডিসেম্বর ভারতের হরিয়ানা রাজ্যের পানিপথ শহরের খানদ্রা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন নীরাজ চোপড়া। তার পিতার নাম সতীশ কুমার এবং মা সরোজ দেবী। নিরাজ চোপড়ার বাবা পেশায় একজন কৃষক মা হলেন গৃহবধূ। পিতা-মাতার পাঁচ সন্তানের মধ্যে নীরাজ চোপড়া হলেন সর্বজ্যেষ্ঠ। ২৫ বছর বয়সী নীরাজ চোপড়া এখনো পর্যন্ত অবিবাহিত।

নীরাজ চোপড়ার শিক্ষাগত যোগ্যতা

হরিয়ানা রাজ্যের পানিপাত শহরের খানদ্রা গ্রাম থেকে প্রাথমিক শিক্ষা অর্জন করেন নীরাজ বাবু। প্রাথমিক শিক্ষা সম্পন্ন হওয়ার পর তিনি বিবিএ কলেজে এডমিশন নেন এবং সেখান থেকে তিনি পড়াশোনা করে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেছেন।

নীরাজ চোপড়ার কোচ

প্রত্যেকটি ক্রীড়াবিদের পিছনে কোচের অবদান অপরিসীম। নীরাজ চোপড়ার কোচ ছিলেন যিনি তার নাম হলো উয়ে হন। তিনি একজন অবসরপ্রাপ্ত জার্মানি জ্যাভলিন ক্রীড়াবিদ ছিলেন। তিনি ১০০ মিটারেরও বেশি বর্ষা নিক্ষেপ করতে পারেন। বর্ষা নিক্ষেপ করে বিশ্বরেকর্ড গড়েছেন তিনি। ১০৪.৮০ মিটার দুরত্বে বর্ষা নিক্ষেপ করে ওয়ার্ল্ড রেকর্ড করেছেন তিনি। যার কারনে নীরাজ চোপড়া অনুপ্রাণিত হন এবং তিনি উয়ে হনের কোচিং ক্লাসে যোগদান করেন।

Neeraj Chopra, নীরাজ চোপড়ার জীবনী, নীরাজ চোপড়া, Neeraj Chopra Biography
নীরাজ চোপড়ার জীবনী | Neeraj Chopra Biography in Bengali
নীরাজ চোপড়ার ক্যারিয়ার

বয়স যখন ১১ বছর, তখন থেকে বর্ষা নিক্ষেপ করতে শুরু করেছিলেন নীরাজ চোপড়া। নীরাজ চোপড়া বর্ষা প্রশিক্ষণকে আরও শক্তিশালী করার জন্য ২০১৬ সালে একটি রেকর্ড তৈরি করেছিলেন, যা টোকিও অলিম্পিকে খুবই উপকারী প্রমাণিত হয়েছে। নীরাজ চোপড়া বর্ষা প্রশিক্ষণের জন্য ২০১৪ সালে একটি বর্ষা কিনেছিলেন মাত্র ৭ হাজার টাকা দিয়ে। এরপর তিনি আন্তর্জাতিক স্তরে বর্ষা নিক্ষেপ করার জন্য ১ লক্ষ টাকা দিয়ে একটি বর্ষ কিনেছিলেন। ২০১৭ সালের এশিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপ নীরাজ চোপড়া ৫০.২৮ মিটার দূরত্বে বর্ষা নিক্ষেপ করে ম্যাচ জিতে ছিলেন। ওই বছরেই তিনি IAAF ডায়মন লীগ ইভেন্টেও অংশ নিয়েছিলেন যেখানে তিনি সপ্তম স্থান অধিকার করে ছিলেন। এরপর কোচের সহযোগিতা নিয়ে কঠোর পরিশ্রম করে নতুন রেকর্ড গড়েছেন নীরাজ চোপড়া।

নীরাজ চোপড়ার রেকর্ড

বর্ষা নিক্ষেপ করে খেলোয়াড় হিসেবে নীরাজ চোপড়া তার জীবনে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ রেকর্ড গড়েছেন। আসুন এক নজরে সেগুলি দেখে নেওয়া যাক –

  • ২০১২ সালের উত্তরপ্রদেশের লখনৌ -তে আয়োজিত 16 তম “ন্যাশনাল জুনিয়র জ্যাভলিন থ্রো” প্রতিযোগিতায় ৬৮.৪৬ মিটার দূরত্বে বর্ষা নিক্ষেপ করে প্রথমবার স্বর্ণ পদক জয় করনে।
  • ২০১৩ সালে “ন্যাশনাল ইয়ুথ চ্যাম্পিয়নশিপে” দ্বিতীয় স্থান অর্জন করেছিলেন এবং “IAAF বিশ্বজিৎ চ্যাম্পিয়নশিপেও” একটি জায়গা করে নিয়েছিলেন তিনি।
  • 2015 সালে “ইন্টার ইউনিভার্সিটি চ্যাম্পিয়নশিপ” প্রতিযোগিতায় ৮১.০৪ মিটার দূরত্বে বর্ষা নিক্ষেপ করে এজ গ্রুপে (age groupe) সেরা বর্ষা নিক্ষেপকের খেতাব অর্জন করেন।
  • ২০১৬ সালে “বিশ্ব জুনিয়র চ্যাম্পিয়ন শিপ” প্রতিযোগিতায় ৮৬.৪৮ মিটার দূরত্বের বর্ষা নিক্ষেপ করে স্বর্ণপদক জয় লাভ করেন তিনি।
  • ২০১৬ সালে “দক্ষিণ এশিয়ান বর্ষা নিক্ষেপণ প্রতিযোগিতার” প্রথম রাউন্ডেই ৮২.২৩ মিটার দূরত্বের বর্ষা নিক্ষেপ করে স্বর্ণপদক জয় লাভ করেন তিনি।
  • ২০১৮ সালে “কমন ওয়েলথ গেম” প্রতিযোগিতায় ৮৬.৪৭ মিটার দূরত্বের বর্ষা নিক্ষেপ করে স্বর্ণপদক জয় লাভ করেন তিনি।
  • ২০১৮ সালে “জাকার্তা এশিয়ান গেম” প্রতিযোগিতায় ৮৮.০২ মিটার দূরত্বের বর্ষা নিক্ষেপ করে ভারতের হয়ে স্বর্ণপদক জয়লাভ করেন তিনি।
  • মিকা সিং (১৯৫৮ সালে) এর পর নীরাজ চোপড়া হলেন দ্বিতীয় ক্রীড়াবিদ যিনি ভারতের হয়ে এশিয়ান গেম ও কমনওয়েলথ গেমে স্বর্ণপদক জয়লাভ করেছেন।

আরও পড়ুনঃ বাপ্পি লাহিড়ীর জীবনী | Bappi Lahiri Biography in bengali

নীরাজ চোপড়ার টোকিও অলিম্পিক ২০২১ সময়সূচী

২০২১ সালের টোকিও অলিম্পিকে বর্ষা নিক্ষেপ এর জন্য ফাইনাল ম্যাচের আয়োজন করা হয়েছিল ৭ ই আগস্ট ২০২১ বিকেল ৪.৩০ টে নাগাদ। গ্রুপ এ’ ও গ্রুপ ডি ম্যাচের ন্যূনতম ৮৩.৫০ মিটার দূরত্বে বর্ষা নিক্ষেপ করে কোয়ালিফাই ম্যাচে উত্তীর্ণ হন নীরাজ চোপড়া এবং ১২ জন খেলোয়াড়ের মধ্যে নিজের স্থান তৈরি করে নেন তিনি।

২০২১ সালের ৭ ই আগস্ট বিকেল৪.৩০ টে নাগাদ শুরু হয় বর্ষা নিক্ষেপ এর ফাইনাল ম্যাচ। নীরাজ চোপড়া ফাইনাল ম্যাচে সব থেকে দীর্ঘ ৮৭.৫৮ মিটার দূরত্বে বর্ষা নিক্ষেপ করে ভারতের হয়ে অলিম্পিকে গোল্ড মেডেল জয়লাভ করেন।

Neeraj Chopra, নীরাজ চোপড়ার জীবনী, নীরাজ চোপড়া, Neeraj Chopra Biography
নীরাজ চোপড়ার জীবনী | Neeraj Chopra Biography in Bengali
নীরাজ চোপড়ার বিশ্ব রাঙ্কিং 

বর্ষা নিক্ষেপন প্রতিযোগিতায় বিশ্ব রাঙ্কিং এ বর্ষা নিক্ষেপণ খেলোয়াড়দের মধ্যে ভারতের নীরাজ চোপড়ার রাঙ্ক সমগ্র বিশ্বের মধ্যে চতুর্থতম।

নীরাজ চোপড়ার পুরস্কার সমূহ
  • ২০১২ সালে “ন্যাশনাল জুনিয়র জ্যাভলিন থ্রো” প্রতিযোগিতায় স্বর্ণপদক জয় করেন।
  • ২০১৩ সালে “ন্যাশনাল ইয়ুথ চ্যাম্পিয়ন শিপ” প্রতিযোগিতায় রজত পদক জয় করেন।
  •  ২০১৬ সালে “দক্ষিণ এশিয়ান  জুনিয়র চ্যাম্পিয়ন শিপ” প্রতিযোগিতায় রজত পদক জয় করেন।
  • ২০১৭ সালে ‘এশিয়ান অ্যাথলেটিক চ্যাম্পিয়ন’ হন এবং সেখান থেকে তিনি স্বর্ণপদক জয় করেন।
  • ২০১৮ সালে অর্জুন পুরস্কার অর্জন করেন নীরাজ চোপড়া।
নীরাজ চোপড়ার অন্যান্য পুরস্কার
  • হরিয়ানা সরকারের পক্ষ থেকে নীরাজ চোপড়াকে ৬ কোটি টাকা নগদ অর্থ এবং সরকারি চাকরি দেওয়ার কথা ঘোষণা করা হয়।
  • টোকিও অলিম্পিকে স্বর্ণ পদক লাভ করে বিশ্বের বুকে ভারতের নাম উজ্জ্বল করার জন্য নগদ দু’কোটি টাকা দেওয়ার কথা ঘোষণা করে পাঞ্জাব সরকার।
  • টোকিও অলিম্পিকে স্বর্ণ পদক জয়ের জন্য ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের তরফ থেকে নগদ এক কোটি টাকার আর্থিক রাশি পুরস্কার হিসেবে দেওয়ার কথা ঘোষণা করা হয়েছে।
  • নগদ এক লক্ষ টাকার আর্থিক রাশি প্রদান করার কথা ঘোষণা করে উত্তরপ্রদেশের গোরখপুর নগর পালিকার পক্ষ থেকে।
  • এক বছরের জন্য নিশুল্ক বিমানযাত্রার কথা ঘোষণা করা হয়েছে ইন্ডিগো এয়ারলাইন এর পক্ষ থেকে।
নীরাজ চোপড়ার আয়

নীরাজ চোপড়ার আয় সম্পর্কে এখনো পর্যন্ত কোনো সঠিক তথ্য আমাদের কাছে এসে পৌঁছায়নি। তবে গ্যাটোরেড তাকে তাদের কোম্পানির ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে নিযুক্ত করেছে। নীরাজ চোপড়ার বাৎসরিক আয় প্রায় ৫ মিলিয়ন ডলারের আশেপাশে।

আরও পড়ুনঃ লতা মঙ্গেশকরের জীবনী | Lata Mangeshkar Biography in Bengali

নীরাজ চোপড়ার জীবনী সম্পর্কে কিছু প্রশ্ন ও উত্তর
প্রশ্নঃ- নীরাজ চোপড়া কে?

উত্তরঃ- নীরাজ চোপড়া হলেন একজন ভারতীয় একজন জ্যাভলিন থ্রো বা বর্ষা নিক্ষেপকারী খেলোয়াড়। যিনি অলিম্পিকে স্বর্ণ পদক জয় করেছেন।

প্রশ্নঃ- নীরাজ চোপড়ার কোচের নাম কি?

উত্তরঃ- নীরাজ চোপড়ার কোচের নাম উয়ে হন।

প্রশ্নঃ- নীরজ চোপড়া কোন খেলার সঙ্গে যুক্ত?

উত্তরঃ- নীরজ চোপড়া ভারতীয় ট্র্যাক এবং ফিল্ড বর্শা নিক্ষেপকারী খেলার সঙ্গে যুক্ত।

প্রশ্নঃ- নীরাজ চোপড়া কোন রাজ্যের বাসিন্দা?

উত্তরঃ- ভারতের হরিয়ানা রাজ্যের, পানিপাত শহরে, খানদ্রা গ্রামের বাসিন্দা।

প্রশ্নঃ- নীরাজ চোপড়ার মাতার নাম কি?

উত্তরঃ- নীরাজ চোপড়ার মাতার নাম সরোজ দেবী।

প্রশ্নঃ- নীরাজ চোপড়ার উচ্চতা কত?

উত্তরঃ- নীরাজ চোপড়ার উচ্চতা ৫ ফুট ১০ ইঞ্চি।